8. সিরিয়াল কমিউনিকেশন্স (8051 Serial Communications)

SCON register

ডিজিটাল যোগাযোগ ব্যবস্থায় দুই ধরণের তথ্য সঞ্চালন ব্যবস্থা প্রচলিত। এক সিরিয়াল যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং দুই প্যারালাল যোগাযোগ ব্যবস্থা। সিরিয়াল যোগাযোগ ব্যবস্থায় একটি বা দুইটি তারের সাহায্যে দুইটি সিস্টেমের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা তৈরি করা যায়। অপর পক্ষে প্যারালাল যোগাযোগ ব্যবস্থায় ‘n’ বিটের তথ্য একসাথে আদান প্রদানের জন্য n টি তারের প্রয়োজন হয়। একারণে প্যারালাল যোগাযোগ ব্যবস্থা অতি দ্রুত। নীচের টেবিল থেকে আমরা সিরিয়াল এবং প্যারালাল যোগাযোগ ব্যবস্থার পার্থক্য সহজে বুঝতে পারব—

  • সিরিয়াল যোগাযোগ ব্যবস্থায় দুটি তারের একটির মাধ্যমে 1 এবং 0 এর সাহায্যে গঠিত একটি তথ্য প্রবাহ বাইরে প্রেরণ করা হয়। অনুরূপে দ্বিতীয় একটি তারের মাধ্যমে 1 এবং 0 এর সাহায্যে গঠিত নিবিষ্ট তথ্য গ্রহণ করা হয়।
  • অপর পক্ষে প্যারালাল যোগাযোগ ব্যবস্থায় মাইক্রোকন্ট্রোলারের 8 টি পিন একত্রে 8 বিটের তথ্য প্রেরন করে বা গ্রহণ করে।

8.1 চিত্রে সিরিয়াল ও প্যারালাল ডাটা ট্রান্সফারঃ

Figure 58
8.2 সিরিয়াল কমিউনিকেশন বা যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আমরা দুই ভাগে ভাগ করতে পারিঃ(8051 Serial Communications)

১। সিংক্রোনাস (Synchronous Method )ঃ এই উপায়ে তথ্য আদান প্রদানে দাতা এবং গ্রহীতা উভয়েই যে ক্লক পালস ব্যবহার করে তা পরস্পর সামঞ্জস্যপূর্ণ। সুতরাং দাতা এবং গ্রহীতার ক্লক পালস রেট একই হয়।

২। অ্যাসিংক্রোনাস ( Asynchronous Method )ঃ এই প্রকার উপায়ে তথ্য আদান প্রদানে সামঞ্জস্যপূর্ণ ক্লক পালস ব্যবহারের পরিবর্তে তথ্য প্রবাহটি শুরু(start bit) এবং শেষ(stop bit) বিট-সংকেতের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদানে সামঞ্জস্য বিধান করে। কারেকটার ডাটা বা ৮ বিটের তথ্য সঞ্চালনের ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি বহুল ভাবে ব্যবহৃত হয়।

  • একটি start বিট এবং একটি বা দুটি stop বিটের মধ্যে ৮ বিটের কারেকটার ডাটাটিকে রাখা হয়। একে ফ্রেমিং ( framing ) বলা হয়।
  • Start বিট সর্বদা 0 হয় এবং stop বিট (একটি বা দুটি) সর্বদা 1 হয়।

সিরিয়াল যোগাযোগ ব্যবস্থার ( Serial Communications ) জন্য দুই প্রকারের IC ( Integrated circuit )  মার্কেটে সহজলভ্য – ১>UART (Universal Asynchronous Receiver Transmitter)

২>USART ( Universal Synchronous-Asynchronous Receiver Transmitter)

  • সিরিয়াল কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে ডাটা ট্রান্সফারের রেটকে বলা হয় bps বা bits per second
  • অনেক ক্ষেত্রে bps কে বাড রেট বা baud rate বলা হয়।

8.3 সিরিয়াল কমিউনিকেশন এবং ৮০৫১ :

৮০৫১ মাইক্রোকন্ট্রোলার সিরিয়াল কমিউনিকেশনের জন্য দুটি সিরিয়াল পোর্ট ব্যবহার করে। ৮০৫১ এর পোর্ট P3.0 এবং P3.1 সিরিয়াল যোগাযোগের জন্য নিবেদিত। সাধারণ অবস্থায় এই পোর্ট দুটিও অন্যান্য পোর্টের ন্যায় I/O পোর্ট রূপেই ব্যবহৃত হয়। সিরিয়াল যোগাযোগের সময়ে SCON রেজিস্টারের মাধ্যমে পোর্ট পিন দুটি তথ্য আদান-প্রদানের বিশেষ কর্ম সম্পাদন করে। পোর্ট P3.0 এর মাধ্যমে বাইরের তথ্য মাইক্রোকন্ট্রোলারের ভিতর গৃহীত হয় (RxD) এবং-পোর্ট P3.1 এর মাধ্যমে মাইক্রোকন্ট্রোলার তার নিজের তথ্য বাইরে সঞ্চালিত করে (TxD)।

সিরিয়াল কমিউনিকেশনের জন্য ৮০৫১ নিম্নলিখিত রেজিস্টারগুলি ব্যবহার করেঃ

  1. SBUF রেজিস্টার – তথ্য ধারণের জন্য
  2. SCON রেজিস্টার – কমিউনিকেশন তথা যোগাযোগ নিয়ন্ত্রণের জন্য
  3. PCON রেজিস্টার – তথ্য সঞ্চালনের গতি নিয়ন্ত্রণের জন্য

8.4 SBUF রেজিষ্টারঃ

  • এটি একটি ৮ বিট রেজিস্টার।
  • TxD লাইনের মধ্যে দিয়ে বাইরে তথ্য পাঠানোর সময়ে তথ্য বা ডাটাটি SBUF রেজিস্টারে লিখতে হবে।
  • SBUF রেজিস্টারে লেখার পর মাইক্রোকন্ট্রোলার নিজেই ৮ বিটের তথ্যের সামনে ও পিছনে start বিট ও stop বিট বসিয়ে তথ্যটিকে framing করবে এবং TxD লাইনের মধ্যে দিয়ে তথ্যটিকে গন্তব্য স্থলে পাঠাবে।
  • তথ্য গ্রহণ করার সময়ে RxD লাইন থেকে SBUF তথ্য সংগ্রহ করবে।  এবং start বিট ও stop বিট মুক্ত করে তথ্যটিকে পুনর্গঠিত (deframe) করবে।
  • নোটঃ প্রকৃতপক্ষে SBUF হল দুইটি রেজিস্টার। একটিতে তথ্য লেখা হয় TxD লাইনের মধ্যে দিয়ে বাইরে পাঠানোর জন্য। অপরটি RxD লাইন থেকে প্রাপ্ত তথ্য ধারণ করে।

8.5 SCON রেজিষ্টারঃ

SCON রেষ্টারও হল একটি ৮ বিটের রেজিস্টার। এটি তথ্যের আদান প্রদানকে নিয়ন্ত্রণ করে।

SM0: এই বিটটি সফটওয়ার দ্বারা সেট/ ক্লিয়ার হয়। সিরিয়াল কমিউনিকেশনের মোড নির্ধারণ করে

SM1: সফটওয়ার দ্বারা সেট/ক্লিয়ার হয়। সিরিয়াল কমিউনিকেশনের মোড নির্ধারণ করে

SM2: সফটওয়ার দ্বারা সেট/ক্লিয়ার হয়।

SM2 = 0 –>সিঙ্গল প্রসেসর এনভায়রনমেন্ট

SM2 = 1 –>মাল্টি প্রসেসর এনভায়রনমেন্ট

REN: সফটওয়ার দ্বারা সেট/ক্লিয়ার করা হয়।

REN = 0 –> মাইক্রোকন্ট্রোলার তথ্য গ্রহণে অসমর্থ হবে।

REN = 1 –> মাইক্রোকন্ট্রোলার তথ্য গ্রহণ করতে সক্ষম হবে।

TB8 : সফটওয়ার দ্বারা সেট/ক্লিয়ার করা হয়। মোড ২ এবং মোড ৩ এর ক্ষত্রে এটি ব্যবহার করা হয়।                      এক্ষেত্রে ৯ টি বিট একত্রে বাইরে পাঠানো হয়।

TB8  = 1 সিরিয়াল পোর্টের ৯ তম বিটে ১ লেখা হয়।

TB8  = 0 ৯ তম বিটে 0 লেখা।

RB8: সফটওয়ার দ্বারা সেট/ক্লিয়ার হয়। মোড ২ এবং মোড ৩ এর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

RB8 = 1 তথ্য গ্রহণের সময়ে ৯ তম বিট রূপে ব্যবহৃত হয়। মোড ২,৩ এর ক্ষেত্রে।

RB8 = 0 অন্য ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়( মোড ২, ৩ ছাড়া)।

TI(Transmission Interrupt): হার্ডওয়ার দ্বারা অর্থাৎ মাইক্রোকন্ট্রোলার দ্বারা সেট হয়।

TI = 0 নির্দেশ করে তথ্য সঞ্চালন এখনো ঘটছে।

TI = 1 (হার্ডওয়ার দ্বারা সেট হয়) নির্দেশ করে যে তথ্য সঞ্চালন     সফলতার সাথে শেষ হয়েছে এবং ৮০৫১ মাইক্রোকন্ট্রোলার অপর     একটি বাইট বাইরে পাঠানোর জন্য প্রস্তুত।

RI(Receive Interrupt):                         হার্ডওয়ার দ্বারা অর্থাৎ মাইক্রোকন্ট্রোলার দ্বারা সেট হয়।

RI = 0 নির্দেশ করে যে তথ্য গ্রহণ (receiving) বর্তমানে চলছে।

RI = 1 (হার্ডওয়ার দ্বারা সেট হয়) নির্দেশ করে তথ্য গ্রহণ সফলতা     পূর্বক সম্পূর্ণ হয়েছে এবং         ৮০৫১ অপর একটি বাইট (নষ্ট হবার        পূর্বে) গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত।

8.6 8051 সিরিয়াল কমিউনিকেশনের মোডঃ

Figure 60

UART তথ্য সঞ্চালনের ক্ষেত্রে আমরা সাধারণভাবে সিরিয়াল মোড ১ ব্যবহার করব।

8.7 PCON রেজিষ্টারঃ

SMOD(PCON.7):        সিরিয়াল বাড রেটকে পরিবর্তন করে।

SMOD = 1 সিরিয়াল বাড রেটকে দ্বিগুণ করে।

SMOD = 0 সিরিয়াল বাড রেট অপরিবর্তিত থাকে।

PCON রেজিস্টারের বাকি বিটগুলি এমরা এখন ব্যবহার করব না।

8.8 বাড রেট(Baud Rate)ঃ

সেকেন্ডে যতগুলি বিট গৃহীত বা পাঠানো হয় তাকে সাধারণভাবে বিটস পার সেকেন্ড (bits per second) বা bps বলা হয়। একেই বাড রেট বলে। সিরিয়াল মোড ১ এবং ৩ এর ক্ষেত্রে সিরিয়াল মোড সেট করার পর কোডিঙের সাহায্যে আমাদের তথ্য সঞ্চালনের গতি বা বাড রেট অবশ্যই নির্ধারণ করতে হব। সিরিয়াল মোড ০ এবং ২ এর ক্ষেত্রে ক্রিস্টাল ফ্রিকোয়েন্সিই তথ্য সঞ্চালনের বাড রেট নির্ধারণ করবে।

মোড 0

এই ক্ষেত্রে বাড রেট হবে সর্বদা ক্রিস্টাল ফ্রিকোয়েনসি ভাগ ১২। ১১.০৫৯২ MHz ক্রিস্টাল ফ্রিকোয়েন্সির জন্য বাড রেট হবে ১১০৫৯২০০/১২ = ৯২১৫৮৩।

মোড ২::

বাড রেট হল ক্রিস্টাল ফ্রিকোয়েন্সি ভাগ ৬৪। অর্থাৎ ১১.০৫৯২ MHz ক্রিস্টাল ফ্রিকোয়েন্সির জন্য বাড রেট ১১০৫৯২০০/৬৪ = ১৭২৭৯৭।

মোড ১ ও ৩:

মোড ১ ও ৩ এর জন্য বাড রেট নির্ধারিত হয় কত দ্রুত টাইমার ১ ওভারফ্লো করছে তার উপর। যত দ্রুত টাইমার ১ ওভারফ্লো করবে বাড রেট তত বেশি হবে।  সিরিয়াল মোড ১ ও ৩ এর ক্ষেত্রে বাড রেট নির্ধারণের সাধারণ পদ্ধতিঃ

  • টাইমার ১ কে ৮ বিট অটো রিলোড মোডে রাখতে হবে (টাইমার ১ মোড ২)।
  • এই টাইমার মোডে TH1 মান 00H থেকে FFH পর্যন্ত হতে পারে।
  • তথ্য সঞ্চালনের গতি নির্ধারণের জন্য TH1 এ এমন মান লোড করা হল যেটি ঐ নির্দিষ্ট বাড রেট তৈরির জন্য উপযুক্ত ফ্রিকোয়েন্সিতে টাইমার ১ এর ওভারফ্লো ঘটায়। অর্থাৎ TL1 এর মান TH1 এ সঞ্চিত মান থেকে শুরু করে 0xFF পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়।
  • যদি PCON.7 সেট না থাকে ( SMOD = 0) সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট বাড রেট তৈরির জন্য টাইমার ১ এর TH1 ভ্যালু হবেঃ

TH1 = 256 – ( (crystal frequeny/(12*32))/Baud)

সুতরাং 11.0592 MHz ক্রিস্টালের ক্ষেত্রে SMOD = 0 র জন্য বাড রেট 9600 করতে গেলে

TH1 = 256 – ((11059200/(12*32))/9600)

TH1 = 256 – 3 = 253 = 0xFD (বা TH1 = -3)

সুতরাং TH1 এর মান 0xFD বা -3 সেট করতে হবে।

আবার 11.0592 MHz ক্রিস্টালের ক্ষেত্রে SMOD = 0 র জন্য বাড রেট 19200 করতে গেলে

TH1 = 256 – ((11059200/(12*32))/19200)

TH1 = 256 – 1.5 = 254.5

এখন TH1 এর মান 254 বা 255 তে সেট করলে আমরা কাঙ্খিত বাড রেট নির্ধারণ করতে পারব না।

এক্ষেত্রে আমরা PCON.7 বা SMOD =  1 করলে বাড রেট দ্বিগুণ হবে। অর্থাৎ 19200 বাড রেটের জন্য      আমরা নির্দিষ্ট স্থানে 9600 দ্বারা ভাগ করব।

সুতরাং,

TH1 = 256 – ((11059200/(12*32))/9600)

TH1 = 256 – 3 = 253

অর্থাৎ এক্ষেত্রে TH1 এর মান (SMOD =  1) এর ক্ষেত্রে -3 বা 0xFD লোড করলে আমরা নির্দিষ্ট 19200 বাড রেটই পাব। সুতরাং, SMOD=0 9600 বাড রেট পেতে গেলে TH1 (Timer1 Mode 2 এর ক্ষেত্রে) এর মান 0xFD বা -3 করতে হবে। আবার SMOD=1 এ 19200 বাড রেট পেতে গেলে TH1 (Timer1 Mode 2 এর ক্ষেত্রে) এর মান পুনরায় 0xFD বা -3 করতে হবে।

নোটঃ TH1= -3 করলে (0xFF – 3) এই মানটিই TH1 এ সঞ্চিত হয়।

8.9 ৮০৫১ কে সিরিয়াল কমিউনিকেশনে সমর্থ করার জন্য প্রয়োজনীয় ধাপঃ

  1. টাইমার ১ কে মোড ২ অর্থাৎ ৮ বিট অটো রিলোড মোডে রাখতে হবে। এর জন্য TMOD এ 0x20 লোড করতে হবেঃ TMOD = 0x20;
  2. TH1 এ উপযুক্ত মান লোড করতে হবে যা সঠিক বাড রেটকে নির্দিষ্ট করে। যেমন 9600 বাড রেটের জন্য SMOD = 0 র ক্ষেত্রে TH1 = -3 বা 0xFD। এবং SMOD = 1 এর ক্ষেত্রে 19200 বাড রেটের জন্য TH1 = -3।
  3. SCON এ উপযুক্ত মান লোড করতে হবে।

SCON = 0x40; সিরিয়াল মোড ১। এই মোডে SM=1 এবং REN=0, সুতরাং, তথ্য শুধুমাত্র বাইরে যাবে।

SCON = 0x50; সিরিয়াল মোড ১। এই মোডে SM=1 এবং REN=1 সুতরাং, তথ্য বাইরে যাবে এবং ভিতরেও গৃহীত হবে।

  • টাইমার ১ কে শুরু করতে হবে। TR1 = 1;.
  • ট্রান্সফার ইনটারাপ্ট TI ফ্ল্যাগকে নিরবচ্ছিন্ন ভাবে নিরীক্ষণ করতে হবে। তথ্য পাঠানো সফল ভাবে শেষ হলে মাইক্রোকন্ট্রোলার (MCU ) TI ফ্ল্যাগের মান 1 এ উন্নীত করবে। নতুন তথ্য পাঠানোর জন্য TI = 0 করতে হবে।অনুরূপ ভাবে রিসিভ ইনটারাপ্ট RI ফ্ল্যাগকেও নিরবচ্ছিন্ন ভাবে নিরীক্ষণ করতে হবে। তথ্য গ্রহণ সফল        ভাবে শেষ হলে MCU ফ্ল্যাগ RI এর মানকে 1 এ উন্নীত করবে। পুনরায় নতুন তথ্য গ্রহণের জন্য       সফটওয়ার কোডের সাহায্যে RI = 0 করতে হবে।

8.10 কিভাবে 8051 সিরিয়াল কমিউনিকেশন সম্পূর্ণ করেঃ

  • 8051 মাইক্রোকন্ট্রোলার তার RxD এবং TxD পোর্ট পিনের সাহায্যে MAX232 IC র মাধ্যমে পার্সোনাল কম্পিউটরের কম পোর্টের সাথে সিরিয়াল যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ করে।
  • 8051 মাইক্রোকন্ট্রোলারের RxD ও TxD পিনগুলি হল যথাক্রমে পোর্ট P3.0(10 নং পিন) ও P3.1 (11 নং পিন)।
  • কম্পিউটর তার কম (COM) পোর্টের মাধ্যমে অন্যান্য যে ডিভাইস গুলির সাথে সিরিয়াল সংযোগ স্থাপন করে সেগুলি RS232 স্ট্যান্ডার্ড প্রোটোকল মেনে চলে।
  • DB9 বা DB25 হল এমনই RS232 মানের কানেকটর।
  • যেহেতু RS232 স্ট্যান্ডার্ড প্রোটোকলের উদ্ভাবন মাইক্রোকন্ট্রোলারের বহু পূর্বে সেকারণে RS232 এবং মাইক্রোকন্ট্রোলার TTL (Transistor Transistor Logic) প্রোটোকলের মধ্যে সামঞ্জস্য রক্ষার জন্য MAX232 নামকবিশেষ IC র ব্যবহার করা হয়।

উপরোক্ত বিষয়টি সরল করার জন্য এমরা নীচের চিত্রটি দেখবঃ

Figure 62

নোটঃ পূর্ববর্তী ইমেজটিতে DB9 কানেক্টারের RxD TxD পিন বলতে কানেক্টারের ২ ও ৩ নম্বর পিন দুটিকে বলা হয়েছে।

8.11 RS232:

কোন কম্পিউটরকে তার সঙ্গে সংযুক্ত ডিভাইস গুলির সাথে কম (COM) পোর্টের মাধ্যমে সিরিয়াল যোগাযোগে সক্ষম করার জন্য RS232 স্ট্যান্ডার্ড প্রোটোকল উদ্ভাবন করা হয়। এটি কার্যকরী করা হয় সর্বপ্রথম 1960 সালে।

8.11.1 DB9 – DB25:

DB9 হল নয়টি পিনের একটি RS232 মান্যতা যুক্ত কানেক্টর। DB25 হল পঁচিশ পিনের একটি RS232 মান্যতা যুক্ত সিরিয়াল কানেক্টর। নীচে DB9 এবং DB25 উভয় সকেট-যুক্ত কানেকটরের অন্তর্নিহিত সংযোগ ব্যবস্থা দেখানো হলঃ

Figure 63

8.11.2 MAX232:

  • RS232 স্ট্যান্ডার্ড TTL স্ট্যান্ডার্ড পরস্পর সামঞ্জস্য পূর্ণ নয়।
  • RS232 স্ট্যান্ডার্ডে 0 বিট হল +3 ভোল্ট থেকে +25 ভোল্ট এবং 1 বিট ভ্যালু হল -3 ভোল্ট থেকে -25 ভোল্ট। মধ্যবর্তী +3 থেকে -3 ভোল্ট সীমা হল অসঞ্জাত।
  • অপর দিকে TTL লজিক স্ট্যান্ডার্ডে 0 হল 0 ভোল্ট এবং 1 হল +5 ভোল্ট।
  • সুতরাং মাইক্রোকন্ট্রোলার ও কম্পিউটারের মধ্যে সিরিয়াল যোগাযোগের জন্য আমরা একটি কনভার্টার ব্যবহার করব। MAX232 হল এরূপ একটি কনভার্টার।
  • নীচে MAX232 IC র পিন আউট ডায়াগ্রাম দেওয়া হলঃ
Figure 64

8.12 নমুনা প্রকল্পঃ

8.12.1 পরীক্ষাঃ 8051 এর মাধ্যমে সিরিয়াল UART কমিউনিকেশনঃ

নীচের পরীক্ষায় আমরা ৮০৫১ থেকে হাইপার-টার্মিনালের (HyperTerminal) মাধ্যমে পার্সোনাল কম্পিউটরে তথ্য পাঠাবো এবং ডেস্কটপের ঐ টার্মিনাল থেকে ৮০৫১ এ পুনরায় ইনপুট তথ্য প্রদান করব।

8.12.2 পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

পার্ট লিষ্টঃ

  1. AT89S51
  2. MAX232
  3. BREAD BOARD
  4. 33 pF CAPACITOR(2 pieces)
  5. 10 uF CAPACITOR (5 piece)
  6. 10K RESISTOR
  7. RS232 CABLE(DB9/DB25)
  8. 11.0592 MHz CRYSTAL
  9. INDICATOR LED(4 pieces)
  10. CONNECTING WIRE (single thread)
  11. 5 VOLT POWER SUPPLY

সহযোগী হার্ডওয়ার লিষ্টঃ

  1. 8051 BURNER DEVICE
  2. COMPUTER

প্রোগ্রামিং এনভায়রনমেণ্টঃ

  1. KEIL uVISION (for 8051)
  2. HYPERTERMINAL (for COMPUTER)

সতর্কতাঃ কখনোই DB9/ DB25 এর কোন পিনকে মাইক্রোকন্ট্রোলারের কোন পিনের সাথে সরাসরি যুক্ত করা উচিত নয়। কারণ মাইক্রোকন্ট্রোলারের TTL লেভেল DB9/DB25 এর RS232 লেভেলের সাথে সামঞ্জস্য পূর্ণ নয়। TTL লেভেলকে DB9/DB25 এর সাথে MAX232 এর সাহায্যে যুক্ত করতে হবে।

8.12.3 প্রয়োজনীয় সার্কিটঃ

Figure 65

8.12.4 পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় কোডঃ

ডাউনলোড লিংক

Figure 65a
Figure 65b
  • আমরা Keil uVision এ প্রোগ্রামটি লেখার পর কম্পাইল করে hex ফাইল তৈরি করব এবং বার্ণারের সাহায্যে hex ফাইলটি আমরা 8051 মাইক্রোকন্ট্রোলারে আপলোড করব। এর পর প্রয়োজনীয় বর্তনী সম্পূর্ণ করার পর কম্পিউটরের hyperterminal এ প্রোগ্রামটি টেস্ট করব।

8.13 হাইপারটার্মিনালঃ

কম্পিউটরে হাইপারটার্মিনাল ওপেন করতে গেলে আমাদের ক্লিক করতে হবে start —> All Programs —> Accessories —> Communications —> HyperTerminal.

নীচের ডায়ালগ বক্সটি ওপেন হবেঃ

Figure 66

“Yes” ক্লিক করা হল। নীচের বক্সটি ওপেন হবেঃ

Figure 67

OK করা হলঃ

Figure 68

পুনরায় OK করা হলঃ

Figure 69

আবার OK করলামঃ

Figure 70

এখন আমাদের হাইপারটার্মিনাল ওপেন হল। এখন ৮০৫১ কানেকশন সঠিক থাকলে এবং প্রোগ্রাম কোড তথা hex কোড ঠিক থাকলে ৮০৫১ কে স্টার্ট করার সাথে সাথে হাইপার-টার্মিনালে ৮০৫১ থেকে আগত তথ্য ভেসে উঠবে।

  • হেক্স কোডটি মাইক্রোকন্ট্রোলারে আপলোড করতে হবে
  • ৮০৫১ এর RxD ও TxD পিনকে অর্থাৎ যথাক্রমে 10 ও 11 নং পিনকে MAX232 এর 9 ও 10 নং পিনের সাথে বা 12 ও 11 পিনের সাথে যুক্ত করতে হবে।
  • যদি MAX232 এর 9 ও 10 নং পিনকে যথাক্রমে MCU এর RxD ও TxD পিনের সাথে যুক্ত করা হয় তাহলে MAX232এর 8 ও 7 নং পিনকে হাইপারটার্মিনালের DB9/DB25 এর TxD ও RxD সাথে যুক্ত করতে হবে।
  • যদি MAX232এর 12 ও 11 নং পিনকে যথাক্রমে MCU এর RxD ও TxD পিনের সাথে যুক্ত করা হয় তাহলে MAX232এর 13 ও 14 নং পিনকে হাইপারটার্মিনালের DB9/DB25 এর TxD ও RxD সাথে যুক্ত করতে হবে।
  • DB9 এর TxD ও RxD পিন দুটি হল যথাক্রমে পিন 3 ও পিন 2. GND পিনটি হল DB9 এর 5 নং পিন।
  • ডেস্কটপে হাইপারটার্মিনাল ওপেন করে ৮০৫১ MCU কে সক্রিয় (পাওয়ার অন) করলেই ৮০৫১ এর তথ্য হাইপারটার্মিনালে ভেসে উঠবে।
  • হাইপারটার্মিনাল থেকে নির্দিষ্ট ইনপুট প্রেরণ করলে মাইক্রোকন্ট্রোলার অনুরূপ ভাবে সাড়া দেবে।